1. poroshbangla@gmail.com : admin :
  2. subarnotv@gmail.com : Suborno TV : Suborno TV
January 19, 2021, 4:28 am

২০২০ ঘটনাবহুল যত আলোচিত ঘটনা

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৩১, ২০২০
  • 130 Time View

 

নাফরুল হাসান: বিদায়ী ২০২০, রীতিমত ঘটনাবহুল একটি বছর। করোনা মহামারির কারণে বছরটি হয়ে উঠে বিধ্বংসী। বছরজুড়েই ঘটেছে নানা ঘটনা-দুর্ঘটনা। স্বজন হারানোর থেকে শুরু করে অর্থনীতির ভাঙ্গন কি হয়নি এই বছরে? নানান আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর ঘটনার মধ্য দিয়েই পার হল বছরটি। পুরো বিশ্বের মত থমকে যায় বাংলাদেশও। প্রতিদিনই শুনতে হয়েছে মৃত্যুর সংবাদ। বছরের তৃতীয় মাসে বিশ্বের সঙ্গে মহামারী করোনাভাইরাসে জর্জরিত হয় দেশ। একদিকে করোনা অন্যদিকে মহামারিকালেই নানান আলোচনায় মিলেমিশে একাকার ছিলো ২০২০। এসময় স্বাস্থ্যখাত থেকে শুরু করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান,রাজনৈতিক,চলচ্চিত্র, বিচারঙ্গন, ধর্মীয় অঙ্গনসহ প্রতিটি খাতই ছিলো আলোচনা-সমালোচনা। ঘটেছে চাঞ্চল্যকর বহু ঘটনা।

স্বাস্থ্যখাতে মাস্ক কেলেঙ্কারি:

বছরে আলোচনার শীর্ষে ছিলো স্বাস্থ্যখাত। মাস্ক কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে গ্রেপ্তার হয় ঢাবির সহকারী রেজিস্ট্রার। বছরের অন্যতম আলোচিত ঘটনা ছিল এটি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) নকল এন-৯৫ মাস্ক সরবরাহের ঘটনা। এ ঘটনায় ২৪ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারি রেজিস্ট্রার শারমিন জাহানকে গ্রেফতার করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিলেন, অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী শারমিনের সরবরাহ করা এক হাজার ৭০০ মাস্কের মধ্যে নকল মানহীন মাস্ক পাওয়া যায়।

আলোচনার বোম ফাটে উত্তরার বেসরকারি রিজেন্ট হাসপাতালের কাণ্ডে।

রিজেন্টের সাহেদকাণ্ড:

 

বছরের সবচেয়ে আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর ঘটনা ছিল করোনা টেস্ট জালিয়াতি। উত্তরার বেসরকারি রিজেন্ট হাসপাতাল ছিল এ জালিয়াতির কেন্দ্রবিন্দু। হাসপাতালটি টেস্ট না করেই করোনা রিপোর্ট দিত। এছাড়াও সরকার কর্তৃক করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে রোগীদের কাছ থেকে টাকা না নেয়ার কথা থাকলেও রিজেন্ট হাসপাতাল সাধারণ মানুষের কাছ থেকে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এসব অভিযোগ ওঠার পরই দেশজুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়।

জেকেজির সাবরিনাকাণ্ড:

এদিকে রিজেন্টের সাহেদ কেলেঙ্কারিতে তোলপাড় শুরুর মধ্যেই ওঠে আসে আরেক বেসরকারি প্রতিষ্ঠান জেকেজি হেলথ কেয়ারের নাম।

এই প্রতিষ্ঠানটিও করোনাভাইরাস পরীক্ষার টেস্ট না করেই রিপোর্ট সরবরাহ করত। জেকেজির চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা চৌধুরী ও তার স্বামী প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী আরিফ চৌধুরী। এ দু’জনের বিরুদ্ধেই করোনা টেস্ট জালিয়াতিতে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগ উঠে। শুরু হয় দেশজুড়ে তোলপাড়। বিশেষ করে ডা. সাবরিনা আসেন আলোচনা-সমালোচনার শীর্ষে। ডা. সাবরিনা ছিলেন জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের চিকিৎসক।

খালেদা জিয়ার মুক্তি:

এর আগে দেশবাসীকে আরেক আলোচনায় মগ্ন হতে দেখা যায় বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার কারামুক্তির ঘটনায়।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট এবং চ্যারিটেবল ট্রাস্ট সম্পর্কিত দু’টি দুর্নীতির মামলায় ১৭ বছরের সাজা নিয়ে বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া কারাভোগ করছিলেন। দুইবছরের বেশি সময় কারাভোগের পর এই করোনাভাইরাস সংক্রমণকালে তাকে কারাভোগ স্থগিত করে মুক্তি দেয়া হয়। খালেদা জিয়ার মুক্তির পর তাঁর বোন সেলিমা ইসলাম বলেছেন, তাদের আবেদনের পাশাপাশি করোনাভাইরাস পরিস্থিতি তার মুক্তির বিষয়টি তরান্বিত করেছে বলে তারা মনে করেন।

যুবলীগ নেত্রী পাপিয়াকাণ্ড:

বছরের শুরুতে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে যুবলীগ নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া র‌্যাবের হাতে আটক হওয়ার ঘটনা; যা সারা দেশে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়। ২২ ফেব্রুয়ারি প্রতারণা, অর্থপাচার, জাল টাকা সরবরাহ, মাদক ব্যবসা ও অনৈতিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে পাপিয়া ও তার স্বামী মফিজুর রহমান সুমনসহ ৪ জনকে আটক করে র‌্যাব। এরপরই পাপিয়ার নানা অপকর্মের ফিরিস্তি বের হতে থাকে। যা নিয়ে আলোচনায় মেতে উঠে সাধারণ মানুষ।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-

এদিকে করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষা ব্যবস্থায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সাধারণ ছুটি ঘোষাণার পর বন্ধ হয়ে যায় সব ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। আলোচনা শুরু হতে থাকে অভিভাবকদের মধ্যে। সন্তানদের ভবিষ্যত নিয়ে দেখা দেয় উৎকণ্ঠা। তবে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে আসে সিদ্ধান্ত। কর্তৃপক্ষ থেকে জানানো হয় স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে নেয়া হয়ে অনলাইনে ক্লাশ। আবারো আলোচনা উঠে বিভিন্ন মহলে।

অনলাইন ক্লাস ও অ্যাসাইনমেন্ট:

২৯ মার্চ থেকে সংসদ টেলিভিশনে ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণি পর্যন্ত ক্লাস কার্যক্রম চালু করা হয়। এছাড়া এপ্রিল থেকে উচ্চ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা স্তরে অনলাইনে শ্রেণি কার্যক্রম চালু হয়। ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ৩০ কর্মদিবসের একটি পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচি প্রণয়ন করা হয়। শিক্ষার্থীদের পঠন জ্ঞান অর্জনে ৩০ কর্ম দিবসের মধ্যে প্রতি শিক্ষার্থীর জন্য সপ্তাহে ৩টি করে মোট ১৮ টি অ্যাসাইমেন্ট তৈরি করা হয়েছে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তিকরণ:

দীর্ঘ ১০ বছর স্থগিত থাকার পর নতুন করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়। একসঙ্গে এমপিওভুক্ত করা হয়েছে দুই হাজার ৬৩২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে স্কুল ও কলেজ এক হাজার ৬৪৬টি, কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ৪৮৪টি ও মাদরাসা ৫০২টি।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সকল বৃত্তি কার্যক্রম ডিজিটালাইজড করা হয়েছে।  উচ্চ শিক্ষার মান উন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগে ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণ করে বিধিমালা প্রণয়নের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

এছাড়া চলতি বছর ৫০২টি মাদরাসা এমপিওভুক্তি, মাদরাসা শিক্ষা অধিদফতর নিয়োগ বিধিমালা-২০২০ প্রণয়ন, মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড আইন-২০২০ প্রণয়ন প্রস্তাব জাতীয় সংসদে প্রক্রিয়াধীন, বিএমটিটিআই নিয়োগ বিধিমালা-২০২০ প্রণয়ন বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনে প্রক্রিয়াধীন, মাদরাসা শিক্ষায় উচ্চ শিক্ষার পথ সুগম করার লক্ষ্যে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ও ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন ৫২টি মডেল মাদরাসায় অনার্স কোর্স চালু করা হয়েছে।

ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড:

বছর জুরে কয়েকটি ধর্ষণের ঘটনায় মানুষ ব্যাপক ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখায়।বছরের শুরুতেই একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় ব্যাপক বিক্ষোভ হয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে। সন্ধ্যায় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে চড়ে বান্ধবীর বাসায় যাচ্ছিলেন। উদ্দেশ্য একসাথে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেবেন।

সন্ধ্যা ৭টার দিকে তিনি কুর্মিটোলা এলাকায় বাস থেকে নামেন। সেখান থেকেই অজ্ঞাত এক ব্যক্তি তার মুখ চেপে ধরে পাশের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যায়।ঘটনার আকস্মিকতায় সেখানেই জ্ঞান হারান ছাত্রীটি। নির্যাতনের এক পর্যায়ে জ্ঞান ফিরে পান তিনি এবং আবার জ্ঞান হারান।

এছাড়া নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনা ঘটে সেপ্টেম্বরের দিকে।

অক্টোবরে সোশাল মিডিয়াতে দেড় মিনিটের একটা ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে আলোচনা শুরু হয়, আর মানুষ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে ঘটনার বিচার দাবি করে। পুলিশ জানায়, মাস খানেক আগে উপজেলার স্থানীয় কয়েকজন যুবক ওই গৃহবধূকে নির্যাতন করে।

এদিকে আলোচনায় আসে সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে এক তরুণী ধর্ষণের ঘটনা। সিলেট শহরের বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করে সাধারণ মানুষ। সিলেটের টিলাগড় এলাকার এমসি কলেজের গেটের সামনে থেকে ঐ তরুণীকে তুলে নিয়ে যায় কয়েকজন। ঐ তরুণী তার স্বামীর সাথে একটি গাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিলেন।

একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা নিয়ে প্রতিবাদ-আন্দোলনের মুখে এই অপরাধের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করা হয়েছে।

পুলিশের গুলিতে মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ড:

পাপিয়া, সাহেদ আর সাবরিনাকাণ্ডের রেশ কাটতে না কাটতেই দেশে ঘটে আরেক চাঞ্চল্যকর ঘটনা। ৩১ জুলাই কক্সবাজারের টেকনাফে বাহারছড়া ইউনিয়নের মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ নিহত হন। এ নিয়ে সারা দেশে তীব্র আলোচনা আর প্রতিবাদ শুরু হয়। অভিযোগ ওঠে টেকনাফ থানার ওই সময়কার ওসি প্রদীপ কুমার দাশের বিরুদ্ধে।

ধর্ম অবমাননার অভিযোগে পিটিয়ে হত্যা:

চলমান বছরেই লালমনিরহাটের একজন কে পিটিয়ে হত্যা করে তার মরদেহ পুরিয়ে দেয়ার ঘটনায় হতবাক করে মানুষকে। পাটগ্রামে শহীদুন নবী জুয়েল নামে ঐ ব্যক্তির নামে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ এনে শত শত মানুষ তাকে পিটিয়ে মেরে ফেলে এবং মরদেহে আগুন ধরিয়ে দেয়। এই নৃশংস ঘটনার ভিডিও এবং ছবি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ইস্যু:

বিভিন্ন স্থানে ছোট ছোট ঘটনা ঘটলেও ১৩ নভেম্বর আবার একটি ইস্যু নিয়ে তীব্র আলোচনা-সমালোচনা আর বিক্ষোভ শুরু হয়। সম্প্রতি ঢাকায় দুটি পৃথক সমাবেশ করে হেফাজতের নেতা মামুনুল হক ও ফয়জুল করিম চরমোনাই পীর ধোলাইপাড়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কর্যকে মূর্তি আখ্যা দিয়ে বাংলাদেশে যে কোনো ধরনের ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধিতা করে বক্তব্য দেন। তাদের বক্তব্যের পরই রাজনীতি অঙ্গনসহ সারা দেশে আন্দোলন ও প্রতিবাদ শুরু হয়।

শেয়ার করুন

এই রকম আরো সংবাদ

এ্যাপস ডাউনেলাড করেত লোগোেত ক্লিক করুন

Develper By Porosh Tech